‘বোল না আন্টি আউঁ কেয়া’ নামের এই গানের ভিডিওটি ইতিমধ্যে ৩ মিলিয়ন ভিউ, ৩০ হাজার লাইক প্রাপ্ত।

ভারতীয় উপমহাদেশে আর কারোকে ‘আন্টি’ বলে ডাকা যাবে কি না সন্দেহ। নেট-ভুবনে এই সম্বোধন এই মুহূর্তে পর্নানুষঙ্গ বহন করে বলে বিশ্বাস জ্যাঠামশায়দের। ইন্টারনেটে নৈতিক খবরদারির শিকার হলেন জনপ্রিয় ‌র‌্যাপ সঙ্গীত শিল্পী ওমপ্রকাশ মিশ্র। সম্প্রতি ইউটিউব তাঁর এক ভাইরাল ভিডিওকে তাঁর চ্যানেল থেকে নামিয়ে দিয়েছে।

‘বোল না আন্টি আউঁ কেয়া’ নামের এই গানের ভিডিওটি ইতিমধ্যে ৩ মিলিয়ন ভিউ, ৩০ হাজার লাইক প্রাপ্ত। সেই সঙ্গে এটাও স্বীকার্য যে ৬০ হাজার মানুষ এই ভিডিওকে ডিসলাইকও করেছেন। সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ভিডিওটির বিরুদ্ধে বেশ কিছু রিপোর্ট জমা পড়াতেই এই ভিডিওটি ইউটিউব কর্তৃপক্ষ নামিয়ে দেয়।

ভিডিও-টির বিরুদ্ধে মূল অভিযোগ— গানটি যৌন ইঙ্গিতপূর্ণ এবং ভয়ানক ভাবে একপেশে পুরুষতান্ত্রিক। মজার ব্যাপার, এই ভিডিওটি গত ২ বছর ধরেই ইউটিউবে রয়েছে। কিন্তু হঠাৎ কেন এই সাতকেলে বাসি ভিডিও নিয়ে নেটিজেনদের মাথাব্যথা শুরু হল, সেটা বোঝা যাচ্ছে না। অসংখ্য মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ায় এহেন ফতোয়ার বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। তাঁরা বিষয়টিকে নিয়ে তুমুল ব্যঙ্গে মেতেছেন। আর এক ইউটিউবার ঢিনচ্যাক পূজার বিটকেল গানের সঙ্গে তুলনা করে ওমপ্রকাশকে ‘প্রকৃত শিল্পী’ বলা হচ্ছে। এবং এই গানের মধ্যে যে কোথাও অশ্লীলতা নেই, রয়েছে নির্মল মজা, সে কথা তাঁরা গলা খুলে বলছেন। ওমপ্রকাশ নিজে এখনও কিছু বুঝতে পারছেন না বলেই জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *